মেয়েদের অনিয়মিত মাসিক হওয়ার কারণ

1
1319

প্রতিটি মেয়েই কোন না কোন সময় অনিয়মিত মাসিক সমস্যায় ভুগে থাকেন। মাসিক অনিয়মিত বলতে বোঝায় প্রতিটি মেয়েরই প্রতি মাসের একটি নিদিষ্ট তারিখে এটি হয়ে থাকে। যদি এর চেয়ে অন্য রকম হয় তাহলেই এটিকে অনিয়মিত মাসিক বলা হয়ে থাকে। মাসিক বলতে কি বোঝায়? প্রতিটি মেয়েরই প্রতি মাসে তার মাসিকের রাস্তা দিয়ে যে রক্ত স্রাব বের সেটাকেই মাসিক বলা হয়ে থাকে। এই মাসিক সাধারণত ২৮ অথবা ৩৮ দিন পর পর হয়ে থাকে। যখন মাসিক শুরু হয় তখত ২-৭ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হয়। এর থেকে যদি বেশি বা কম হয় তক্ষনি অনিয়মিত মাসিক বলা হয়ে থাকে। অনিয়মিত মাসিক যে কারণে একটি মেয়ের হয়ে থাকে………?

০১. কোন মেয়ে যদি হঠাৎ করে ওজন বাড়িয়ে বা কমিয়ে ফেলে এটা অনিয়মিত মাসিকের কারণ হতে পারে।

০২. ডাক্তরের পরামর্শ ছাড়া যদি কোন হরমোন ঔষধ সেবন করে থাকে।

০৩. যার জন্ম নিয়ন্ত্রণ কারার জন্য হরমোন পিল অথবা কন্টাসেপ্টিক পিল খাচ্ছেন। তারা যদি হঠাৎ করে পিল খাওয়ায় অনিয়ম করেন।

০৪. কন্টাসেপ্টিক ইমারজেন্সি পিল দেখা যায় যেটা ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই নিয়ে থাকেন। এর কারনেও হতে পারে।

০৫. থাইরয়েডের সমস্যার কারণে হতে পারে।

০৬. সন্তান জন্মের সাথেও মাসিক অনিয়মিত হতে পারে। সন্তান জন্মের ৬ মাস থেকে ১ বছর পর্যন্ত মাসিক অনিয়মিত অথবা নাও হতে পারে। এক্ষেত্রে ভয় পাওয়ার কিছু নাই। এটা একসময় ঠিক হয়ে যায়।

মাসিক ২ ধরনের হতে পারে। একটা হল সবসময় অনিয়মিত অন্যটা হঠাৎ করে অনিয়মিত। যাদের সবসময় অনিয়মিত হয়ে থাকে তাদের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নেয়া উচিৎ। হঠাৎ পর্যন্ত হলে জীবন ধারার দিকে একটু খেয়াল করতে হবে। আপনার উপরের কোন প্রভাব আপনার উপরে পড়েছে কিনা খেয়াল করতে হাবে। আর এই সমস্যা কিছু দিনের মধ্যে ঠিক হয়ে যায়। তবে আপনার মাসিক যদি ৭ দিন এর বেশি হয়ে যায় তা হলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নেয়া উচিৎ।

1 COMMENT

  1. এই ওয়েবসাইটটি স্বাস্থ্য এবং বিভিন্ন সুন্দর টিপস বিষয়ক পোস্টের জন্য এই ওয়েবসাইটটি অনেক তথ্যবহুল। তাই এই ওয়েব সাইটের কর্তৃপক্ষগণকে অনেক ধন্যবাদ। আমিও স্বাস্থ্য ও শিক্ষা বিষয় এবং বিভিন্ন তথ্য নিয়ে ব্লগ করে থাকি। যাতে শিক্ষার্থীগণ এবং অনলাইন পাঠকগণ উপকৃত হয়। আমাদের ওয়েবসাইট http://www.studybased.com আমি নতুন, তাই আপনাদের পরামর্শ কাম্য করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here