পৃথিবীর ক্ষমতাধর প্রধানমন্ত্রীর সিকিউরিটি

0
767

কিম জং উন

কিম জং উন উত্তর কুরিয়ার প্রধানমন্ত্রী। তিনি পৃথিবীর সবথেকে সমালোচিত প্রধানমন্ত্রী। কারণ তার রাজ্যের বেশির ভাগ অর্থই খরচ করেন তার লাইফ স্টাইল এবং তার সিকিউরিটির পিছনে। তার পার্সোনাল বডিগার্ড এর সংখ্যা প্রায় ১৫,০০০। কিমের সিকিউরিটির জন্য প্রতিদিন প্রস্তূত থাকে প্রায় ২০,০০০ সৈনিক। তিনি যখন গাড়ী দিয়ে জান তখন তার গাড়ীর পিছনে দৌঁড়াতে থাকেন তার বডিগাৰ্ডেরা। তার এত নিরাপত্তার কারণ হল তার বাবা ও দাদা কে অনেক বার মারার চেষ্টা করা হয়েছে। এবং কিমকেও অনেক বার মারার চেষ্টা করা হয়েছে।

রেচেপ তাইয়েপ এরদোগান

রেচেপ তাইয়েপ এরদোগান তিনি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। বিশ্বের মুসলিম বিশ্বের সবথেকে ক্ষমতা বান প্রেসিডেন্ট। বিশ্বের যে কোন মুসলমানেরা বিপদে প্রলেই এগিয়ে আসেন এরদোগান। এজন্য ইহুদি ও খিস্টান রাষ্ট্র গুল তার শত্রু। তার জন্য নিজেকে সেভ করতে শক্তিশালী সিকিউরিটি ফোর্স রেখেছেন। তার গাড়ী বহর খুব দ্রুত। তিনি যখন রাস্তা দিয়ে জান তখন সেখান কার বিল্ডিং গুলতে সেনাইপার নিয়ে দাড়িয়ে থাকে সিকিউরিটির সদস্যরা। এবং তার গাড়ীর ছাদেও সেনাইপার নিয়ে দাড়িয়ে থাকে তার সিকিউরিটিরা।

শিনজো আবে

শিনজো আবে জাপানের ইতিহাসে সবথেকে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী। শিনজো আবে যখন কোথাও যাবার জন্য বের হন তখন তার সাথে পুর হাইটেক আর্ণ গাড়ী বহর থাকে। এবং গাড়ীতে যে বডিগাৰ্ডেরা থাকেন যাদের প্রাইমিনিস্টার কে প্রটেক্ট করার জন্য এস্পেসাল ট্রেনিং করান হয়ে থাকে। তবে একটি জিনিস জাপানকে অন্য দেশ থেকে আলাদা বানিয়ে দেয়। কারণ ওই দেশের প্রাইমিনিস্টার রাস্তা দিয়ে যায় তখন কোন রাস্তাই ব্লক করা হয় না। শুধু মাত্র তাদের সিকিইরিটিরা অন্য গাড়ীদের শুধু স্লো করতে বলে।

কুইন এলিজাবেথ ২

কুইন এলিজাবেথ ২ গ্রেট ব্রিটেন এর রাণী। যার সিকিউরিটির জন্য ব্রিটিশ সরকার অনেক টাকা খরচ করে। আর মহারাণীর জন্য এই সিকিউরিটি কোন অবাক করা বিষয় নয়। কেননা রানীকে অনেক বার হত্যা করারর চেষ্টা করা হয়েছে। এই রানীকে ২৪ ঘণ্টা সিকিউরিটির মধ্যে থাকতে হয়।

আলফা Conde

আলফা Conde জুইনিয়র প্রেসিডেন্ট। ২০১১ সালে আলফা Conde কে কিছু দুষ্কৃতি হত্যা করার চেষ্টা করে। আলফা Conde সিকিউরিটি হিসেবে সবার সামনে ১০ জন বাইকে পুলিশ অফিসার পার্সোনাল বডিগার্ড ও কিছু মিলিটারি ট্রাক থাকে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হবার আগেও তিনি অনেক তাকার মালিক ছিলেন। এবং এখনো আছেন। তিনি সবসময় নিজের সিকিউরিটির জন্য ফর্মাল সিকিউরিটি এজ়েন্ট ও নেভি ফোর্স থেকে স্পেসাল মেম্বারদের নিজের নিজের সিকিউরিটির জন্য ইউ এস সরকারের কাছ থেকে হায়ার করেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার পড়িবারের সদস্যদের জন্য প্রতিদিন প্রায় গড়ে ৬ কোটি টাকার ও বেশি খরচ করা হয়।

ভ্লাদিমির পুতিনের

ভ্লাদিমির পুতিনের রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট। তার সিকিউরিটির জন্য কতজন লোক নিয়জিত আছে ও তারা কিভাবে তাকে সিকিউরিটি দিয়ে থাকে এটা কেউ সঠিক ভাবে বলতে পারবে না। তবে এক প্রতিবেদনে জানা গেছে তার প্রতিদিন সিকিউরিটির জন্য ৫০,০০০ লোক নিয়জিত থাকেন।

শি জিন পিং

শি জিন পিং চায়নার টপ লিডার। তার সিকিউরিটির জন্য ৮,০০০ এর বেশি মেম্বার থাকে। যাদেরকে আলাদা আলাদা ৭ টি ভাগে ভাগ করা হয়। এরা এতটা পারদর্শীযে তারা বিপদ আশার সাথে সাথে ২ হাতে গাং চালাতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here