নতুন সুইসাইড গেম মোমো

0
581

ব্লু হোয়েল। কে না জানে এই নামটি?
সারাবিশ্বকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল ব্লু হোয়েল। এমনকি আমাদের বাংলাদেশ পর্যন্ত তিমির হাত থেকে রক্ষা পায়নি। সে ব্লু হোয়েলের আতঙ্কের শেষ হতে না হতেই সূচনা হয়েছে আরেক আতঙ্ক গেম মোমো।

গত কয়েকদিন আগে আর্জেন্টিনার এক কিশোরী আত্নহত্যার পর বিষয়টি সামনে আসে এবং দ্রুতই বিষ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে।
মূলত হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে এর বিস্তার।

ওই কিশোরী আত্নহত্যার আগে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে গেছে যেখানে সে তার বাবা মা কে মোমো থেকে সাবধানে থাকতে বলেছে।
দক্ষিন আমেরিকা ছেড়ে গেমটি মেক্সিকো,যুক্তরাষ্ট, ফ্রান্স,জার্মানির মতো দেশগুলোতে ব্যাপক হারে বিস্তার করেছে মোমো নামক এই গেমটি। মোমোর ধরন টা হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপে একটা লিংক আসবে লিংক খুললেই ভেসে ওঠে ভয়ংঙ্কর একটি মুখ। সকল কথা সে ই বলতে থাকে। মুখটা একটু আতঙ্কেরও বটে। মুখটা দেখে ভয়ে শিশুরাও কাঁপবে।

মোমো তার শুরুতেই বলে চ্যালেঞ্জ গ্রহন করো না হলে সশরীরে তার বাড়িতে এসে অভিশাপ দেওয়া হবে, তার বাবা মা কে হত্যা করা হবে।
হাজির হতে পারে ভংঙ্কর চেহারার কেউ।মূলত মোমো গেমে যার চেহারাটি ভেসে উঠেছে সেটা জাপন চিত্রশিল্পী মোদোরী হায়াশির একটি শিল্পকর্ম থেকে নেওয়া। লিঙ্ক ফ্যাক্টরী নামে জাপানের একটি স্পেশাল সংস্খা মোমো পাখি তৈরি করে থাকে। সেটাই ব্যবহার করা হয়ে নতুন আতঙ্ক মোমো গেমে।

সোর্সঃজোবায়ের

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here