চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

0
143
চোখের নিচের কালো দাগ

চোখের নিচের কালো দাগ আপনার মুখের সৌন্দর্যের উপরে প্রভাব ফেলে। চলুন দেখে নেয়া যাক কীভাবে আপনি আপনার চোখের নিচের কাল দাগ দূর করবেন।

যে কারনে চোখের নিচে কালো দাগ হয়ঃ

০১. স্কিনে মেলানিনের পরিমাণ বেড়ে যাওয়া।

০২. অতিরিক্ত স্ট্রেস

০৩. ঘুমের অভাব

০৪. অতিরিক্ত চোখ ডলা

যেভাবে দূর করবেন কাল দাগঃ

০১. ঠাণ্ডা শসাঃ প্রথমে গোল করে কাঁটা দুইটি শসার টুকরা নিতে হবে। এরপরে এটিকে ৩০ মিনিটের জন্য ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। রাতে ঘুমানোর আগে ফ্রিজ থেকে বেড় করে ১০ মিনিট চোখের পাতার উপরে রেখে দিতে হবে। এরপরে পরিষ্কার পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে নিন। শসায় এন্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন সি ও ভিটামিন কে রয়েছে যেগুলো চোখের নিচে স্কিনের কালো দাগ দূর করার জন্য খুব ভালো কাজ করে।

০২. আন্টি-এজিং আইসক্রিমঃ এটি ঘরোয়া উপায়ে তৈরি করা যায়। এটি ত্বকের কালো দাগের সাথে সাথে মুখের অন্যান্য স্পট রিমুভ হবে।এক চামচ অ্যালোভেরার জেল নিয়ে তার মধ্যে পেট্রোলিয়াম জেলি নিয়ে তাতে ৪-৫ ড্রপ নারিকেল তেল মেশান। এরপরে এর মধ্যে দুইটি ভিটামিন ই ক্যাপসুলের নিয়ে এর মধ্যের যে তেলের মত জিনিষটা থাকে সেটা বেড় করে মিশিয়ে নিন। ভিটামিন ই ক্যাপসুলের পরিবর্তে গ্লিসারিন ও ব্যবহার করতে পারেন। এটিকে ভালভাবে মিশিয়ে একটি পরিষ্কার কন্টেইনারে ৭-১০ দিন সংরক্ষণ করে রাখুন। ১০ দিন পরে ক্রিমটিকে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে চোখের নিচে ভালোভাবে মেসেজ করুন। এবং ঘুম থেকে উঠে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি এভাবে প্রতি দিন ব্যবহার করুন ব্যবহার করুন।

০৩. শসা এবং গোলাপ জলঃ প্রথমে হাফ ইঞ্চি পরিমাণ শসা নিয়ে সেটাকে ভালোভাবে কোরিয়া রস বের করে নিন। এরপরে এটার মধ্যে একটা এক চামচ পরিমাণ গোলাপ জল ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণটি তুলোর সাহায্যে চোখের নিচে লাগান, ১৫মিনিট পরে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এ সপ্তাহের দু দিন ব্যবহার করলেই যথেষ্ট।

০৪. একটি টমেটো নিয়ে সেটিকে কুড়িয়ে ১ চামচ পরিমাণ বের করে নিন। এরপর এর টির মধ্যে এক চামচ পরিমাণ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটিকে হাতের সাহায্যে মেসেজ করে চোখের নিচে লাগিয়ে দিন। এটি আপনি সপ্তাহে 2 দিন ব্যবহার করতে পারেন। ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

০৫. মধুঃ প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পরিষ্কার পানি দিয়ে ফেইস ধুয়ে নিন। এরপর আঙ্গুলে সামান্য পরিমাণ মধু লাগিয়ে চোখের নিচের কালো অংশে ও অন্যান্য ফেইস স্পট গুলোতে লাগিয়ে দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here