সামান্য ডিভাইসের মাধ্যমেই পাবেন ইসিজি হার্টবিট রিপোর্ট

0
582

একটা অ্যাপসেই হেলথ টিপস। আমাদের প্রত্যেকের পরিবারে বয়স্ক বাবা মা কিংবা অসুস্থ অনেক ব্যক্তি থাকতে পারেন। কিন্তু আমাদের দ্বারা সবসময় তাদের পর্যবেক্ষন করা সম্ভব হয়না সার্বক্ষণিক তাদের পাশে থাকাও সম্ভব হয় না। এমনকি শহরের বড় বড় ডাক্তার কে সবসময় সরাসরি এসে রিপোর্ট, শরীরের টেম্পারেচার দেখানো সম্ভবপর হয় না। তাই এখন থেকে একটি ছোট ডিভাইস ব্যবহার করেই যে কোন ব্যক্তি অনেক দূর দূরান্ত থেকে তার ইসিজি রিপোর্ট, হার্ট বিট এবং বডি টেম্পারেচার অনেক দূরত্বে থাকা ডাক্তারকে জানিয়ে দিতে পারবে সরাসরি শুধু মাত্র অ্যাপস ব্যবহার করেই ।

যার ফলে ডাক্তার অনেক দূর থেকে একজন রোগীকে পর্যবেক্ষণ করতে পারবে এবং সহজেই ব্যবস্থাপত্র দিতে পারবে। আমরা অনেকেই জানি শুধু ইসিজির মাধ্যমে অনেক রোগ নির্ণয় করা সম্ভব বিশেষ করে যাদের হার্টের সমস্যা থাকে ।

আবার যে কোন কারনে একজন ব্যক্তির অস্বাভাবিক হৃদস্পন্দন হতে পারে তবে সেটাও বুঝতে পারবে আবিষ্কৃত এ ডিভাইসটি।তবে সবকিছু উপেক্ষা করে অ্যাপসটির সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে মনে করেন আপনার একা বাসায় আছেন হঠাৎই হৃদস্পন্দন বেড়ে গেলো এমতাবস্থায় অ্যাপসটি সাথে সাথে আপনাকে এবং আপনার পরিবারের যে কাউকেই জানিয়ে দিতে সক্ষম আর সেটা ফোন কল এবং এসএমএস এর মাধ্যমে কিংবা আপনার মোবাইলে অ্যাপসটি ইন্সটাল করা থাকলে অ্যাপসের মাধ্যমেই।
অ্যাপসটির নামকরন করা হয়েছে Live Health Monitor.

অস্বাভাবিক হার্ট বিট নানা কারণেই হতে পারে যেমন একটি বাচ্চাকে যদি কেউ অপহরণ করার চেষ্টা করে তখন তার স্পন্দন বৃদ্ধি পাবে এবং সেটা স্বাভাবিকের থেকে বেশি। আর সেটা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে তার পরিবারের কারো কাছে জানিয়ে দেবে তার বর্তমান লোকেশন সহ । এবং অপহরন থেকে বাঁচাতে সহযোগীতা করবে।

ডিভাইসটি যেকোনো পোশাকের মধ্যে সেট করা সম্ভব। তাছাড়া এটি এম্বুলেন্স এর মধ্যে ডাক্তারের কাছে পৌঁছানোর পরবর্তী সময় ব্যবহার করা যেতে পারে। ডিভাইসটির আবিষ্কারক মাগুরা পলিটেকনিক ইন্সটিউটের কম্পিউটার টেকনোলজীর ৭ম পর্বের ছাত্র মহেমিনুল ইসলাম তন্ময়। ডিভাইসটি নিয়ে তার ভবিষ্যত পরিকল্পনা সে চাই এই ডিভাইসটি বাংলাদেশ সহ সারাবিশ্বের প্রযুক্তি প্রেমিকেরা ব্যবহার করুক এবং অযাচিত দূর্ঘটনা থেকে রেহাই পাক ।

ডিভাইসটির আবিষ্কারকঃতন্ময়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here